শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
Logo মগবাজারে বিস্ফোরণস্থল থেকে গ্যাস বের হচ্ছে: ফায়ার সাভির্স Logo মগবাজারে বিস্ফোরণস্থল থেকে গ্যাস বের হচ্ছে: ফায়ার সাভির্স Logo আগামীকাল লকডাউনে যে সব সুবিধা পাবেন আপনারাঃ Logo লকডাউনে’ মসজিদে নামাজ পড়তে ৯ নির্দেশনা জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ Logo শঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই নাশকতা নিয়ে আইজিপি। Logo ঢাকা,মগবাজার ওয়ারলেস রেলগেট এলাকায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ৮ আহত শতাধিক Logo খন্দকার সাইফুল ইসলাম (বুড়ো) তার আত্মীয় স্বজনের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন Logo জেলাপ্রশাসক হিসেবে মানিকগঞ্জ জেলায় যোগদান করলেন মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ Logo কুষ্টিয়া কুমারখালীতে পল্লীবিদ্যুেৎর পোল (খুটি) বসানোকে কেন্দ্র করে যুবলীগ নেতাকে হুমকি Logo ২০২১ সালের বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী উদ্বোধন করেন কেরানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ

কুষ্টিয়ায় বাঘা যতীনের ভাস্কর্য ভাঙচুর: যুবলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ৩

প্রতিবেদকের নাম / ৫৭ সময় দর্শন
আপডেট শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২০, ৩:১৫ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বিপ্লবী বাঘা যতীনের ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনায় কয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আনিসুর রহমানসহ (৩৫) তিনজনকে গ্রেপ্তারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার (এসপি) তানভীর আরাফাত আজ শনিবার দুপুরে তাঁর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গ্রেপ্তার বাকি দুজন সবুজ হোসেন (২০) ও হৃদয় আহমেদ (২০)। এ ছাড়া বাচ্চু (৩২) নামের একজন পলাতক। তাঁকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এসপি বলেন, আনিসুরের সঙ্গে কয়া মহাবিদ্যালয় (কলেজ) কর্তৃপক্ষের দ্বন্দ্ব আছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে সহযোগীদের নিয়ে তিনি কলেজের প্রধান ফটকের সামনে সড়কের পাশে স্থাপিত বাঘা যতীনের ভাস্কর্যটি ভাঙচুর করেন।

গত বৃহস্পতিবার রাতে কুমারখালী উপজেলার কয়া গ্রামে বাঘা যতীনের ভাস্কর্যটি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার বিকেলে কয়া কলেজের অধ্যক্ষ হারুন অর রশীদ বাদী হয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেন।

কলেজ সূত্রে জানা যায়, ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম যোদ্ধা ছিলেন বাঘা যতীন। কয়া গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তিনি একাই বাঘের সঙ্গে লড়াই করে বাঘ হত্যা করেছিলেন বলে বাঘা যতীন নামে পরিচিত পেয়েছিলেন। তাঁর স্মৃতিকে ধরে রাখতে গ্রামের কলেজের সামনে ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়। ২০১৬ সালের ৬ ডিসেম্বর তৎকালীন খুলনা বিভাগীয় কমিশনার আবদুস সামাদ ভাস্কর্যের উদ্বোধন করেছিলেন।

এর আগে ৪ ডিসেম্বর রাতে কুষ্টিয়া শহরের পাঁচ রাস্তার মোড়ে বঙ্গবন্ধুর নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভাঙচুর করা হয়। ওই ঘটনায় পুলিশ মাদ্রাসার দুই শিক্ষক ও দুই ছাত্রকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
Web Deveoped By IT DOMAIN HOST